1. admin@notundesh24.com : admin : Md.Murad Hossain
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
*** www.notundesh24.com অনলাইন নিউজ পোর্টালের জন্য কিছু সংখ্যক সাংবাদিক প্রয়োজন আগ্রহীরা যোগাযোগ করতে পারেন, এই ঠিকানায় মোবাইল-01916261714, Email- fmsa532@gmail.com ***
add

বৃত্তাকার অর্থনীতিতে নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশকে সহায়তা করবে

  • শনিবার, ১৮ জুলাই, ২০২০
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে
ছবি সংগৃহীত
নতুনদেশ২৪.কম : ‘সবুজ বৃদ্ধি’ ধারণার ধারাবাহিকতায় ইউরোপ এবং বাকী উন্নত বিশ্বে এখন বিজ্ঞপ্তি অর্থনীতির উপর জোর দেওয়া হচ্ছে। ইওরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ইতিমধ্যে বিজ্ঞপ্তি অর্থনীতির কাজের পরিকল্পনার ভিত্তিতে কাজ করছে। এবং বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান উন্নয়নের অংশীদার হিসাবে নেদারল্যান্ডস পরিবর্তিত উন্নয়নের দৃশ্যে বৃত্তাকার অর্থনীতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতে বাংলাদেশকে সহায়তা করবে। বৃহস্পতিবার নেদারল্যান্ডসের কিং উইলেম-আলেকজান্ডার বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ রিয়াজ হামিদুল্লাহকে এই আশ্বাস দিয়েছেন। বাংলাদেশের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত হিসাবে মুহাম্মদ রিয়াজ হামিদুল্লাহ হেগের রাজপ্রাসাদে রাজার কাছে তাঁর শংসাপত্রাদি উপস্থাপন করছিলেন।
ইইউ ওয়েবসাইট অনুসারে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ২০১৫ সালে তৈরি একটি কাজের পরিকল্পনা অনুসারে কাজ করছে। সেই পরিকল্পনা অনুসারে, লোকজনকে অর্থনৈতিক মূল্যে উচ্চমানের এবং নিরাপদ পণ্য সরবরাহ করা হবে। এই পণ্যগুলি অতীতের পণ্যগুলির তুলনায় আরও টেকসই হবে এবং পুনর্নির্মিতও হতে পারে। ফোকাস উন্নত জীবনযাত্রা, সৃজনশীল কর্মসংস্থান এবং উচ্চতর জ্ঞান এবং দক্ষতা নিশ্চিত করার দিকে। বৃত্তাকার অর্থনীতির মাধ্যমে ইউরোপীয় ইউনিয়নের লক্ষ্য, ২০৩০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণকে একটি নির্দিষ্ট স্তরে হ্রাস করা এবং ব্যয়কে কমপক্ষে ৬০,০০০ বিলিয়ন ইউরো হ্রাস করা, পাশাপাশি ন্যূনতম ৮০,০০০ কাজ নিশ্চিত করা।

ব্রাসেলসের কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে যে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলি প্রথমে বৃত্তাকার অর্থনীতি বাস্তবায়ন করছে। ২০২৫ থেকে, ২৭ ইইউ দেশগুলিতে পণ্য রফতানি করা দেশগুলিকে প্রতিযোগিতায় থাকার জন্য সেই উত্পাদন পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। ইইউতে রফতানি করা দেশগুলির একটি চতুর্থাংশ পণ্য পুনর্নির্মাণের পক্ষে এটি বাধ্যতামূলক হবে।

বৃত্তাকার অর্থনীতিতে বিশেষত পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার স্বার্থে পুনঃ উত্পাদন গুরুত্বপূর্ণ। ভারতে বেশ কয়েকটি শিল্প ইতোমধ্যে এই নতুন পরিস্থিতিতে ইউরোপীয় বাজারের সাথে মিলিত হতে প্রস্তুত।

ইউরোপ বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রফতানির ৬০ শতাংশ গন্তব্য। সুতরাং বাংলাদেশের পক্ষে এই ব্যবস্থার সাথে দ্রুত অভিযোজন করা জরুরি।
add

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর
© notundesh24 ২০২০ All rights reserved. কারিগরি সহায়তা: WhatHappen
Theme Customized By BreakingNews